Home » ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায় (ব্লক না খেয়ে ৬ টি সহজ কৌশলে)
নিবন্ধ

ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায় (ব্লক না খেয়ে ৬ টি সহজ কৌশলে)

ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায়

আপনি কি ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায় কি কি তা জানতে চান? এই পোস্টে আমি আপনার জন্য কোন ধরনের ব্লক খাওয়া ছাড়াই ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার ৬ টি উপায় তুলে ধরবো। এই কৌশলগুলো অনুসরন করলে আপনি ১ মাসে ৫ হাজার ফ্রেন্ড পাবেন বলে আশা করা যায়।

সবাই চায় তার ফেসবুক একাউন্টে কোন পোস্ট শেয়ার করলে তাতে অনেক অনেক লাইক কমেন্ট আসুক, প্রোফাইল পিকচার আপলোড করলে তাতে লাইকের বন্য বয়ে যাক। কিন্তু আপনার আইডিতে যদি বেশি ফ্রেন্ড ফলোয়ার না থাকে তবে লাইক কমেন্ট কে করবে?

তাই আপনার ফেসবুক আইডিতে বেশি বন্ধু বানাতে কি কি করতে হবে তা আমি এখানে তুলে ধরছি। চলুন তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে নিয়মগুলো দেখে নেই।

সহজে ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায় –

* বড় বড় গ্রুপে পোস্ট করা:

ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার প্রধান উপায় হলো বড় বড় গ্রুপগুলোতে নিয়মিত পোস্ট করা।

বড় বড় গ্রুপগুলোতে হাজার হাজার বা লাখ লাখ সদস্য থাকে। যারা প্রায়ই গ্রুপগুলোতে ঘুরে বেড়ায়। আপনি যদি বড় বড় গ্রুপগুলোতে নিয়মিত বিভিন্ন আকর্ষনিয় বিষয়ে পোস্ট করেন তবে আপনার আইডি গ্রুপে বেশি শো করবে। ফলে গ্রুপের লাখ লাখ সদস্যের মাঝে অনেকেই আপনাকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাবে।

আমি নিজেও আমার আইডিতে এভাবে মাত্র ১৫ দিনে ২ হাজারের মতো ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পেয়েছি বিভিন্ন গ্রুপে আকর্ষনিয় বা মজার মজার বিষয় পোস্ট করে।

* বেশি ফ্রেন্ড আছে এমন ফ্রেন্ডদের আইডিতে বা প্রোফাইল ছবিতে কমেন্ট করুন:

ফ্রেন্ডদের প্রোফাইল ছবি বা অন্যান্য পোস্টে কমেন্ট করুন। আমার আবার বলছি, শুধু লাইক নয় কমেন্ট করুন।

কারন লাইক দিলে আপনার আইডি তেমন কারো চোখে পড়বেনা কিন্তু কমেন্ট করলে যারা ঐ পোস্টে ঢুকবে আপনার আইডি তাদের চোখে পড়বে ও তারা সেখান থেকে আপনাকে রিকোয়েস্ট পাঠাতে পারবে।

এতে করে আপনার রিকোয়েস্ট পাওয়ার সম্ভবনা বৃদ্ধি পাবে।

* বড় বড় সংবাদপত্রগুলোর ভক্তপাতায় (ফ্যান পেজ) কমেন্ট করুন:

বিভিন্ন জনপ্রিয় সংবাদপত্রগুলো যখন কোন গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পোস্ট করে তখন সেখানে শত শত এমনকি হাজারো মানুষও মন্তব্য করে।

আপনিও এমন সংবাদপত্রের পোস্টগুলোতে মন্তব্য করতে পারেন। এতে করে আপনার আইডি সারা দেশের বিভিন্ন এলাকার মানুষের সামনে প্রদর্শিত হবে যার মধ্যে অনেকেই আপনাকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্টও পাঠাতে পারে।

বিভিন্ন বড় বড় পেজে বা গ্রুপে বেশি মানুষের দৃষ্টি আকর্ষন করার জন্য ফটো কমেন্ট করতে পারেন।

মজার মজার ফটো কমেন্ট দরকার? আমাদের ওয়েবসাইটে বেশ কিছু মজার ফটো কমেন্ট রয়েছে। যখনই প্রয়োজন হবে তখনই আমাদের ওয়েবসাইটে এসে কাংখিত ফটো কমেন্টটি ডাউনলোড করে সেটি পোস্টে আপলোড করে দিবেন।

আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ফানি ফটো কমেন্ট ডাউনলোড করতে লিংকে ক্লিক করুন।

* আপনার সাথে কোন মিউচুয়াল ফ্রেন্ড নেই এমন আইডিগুলোতে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠান:

যাদের সাথে আপনার ইতিমধ্যেই মিউচুয়াল ফ্রেন্ড আছে তাদের ফ্রেন্ড সাজেশন লিস্টে আপনার আইডি এমনিতেই দেখাবে। এর জন্য আলাদা কিছু করার দরকার নেই তবে যাদের সাথে আপনার কোন মিউচুয়াল ফ্রেন্ড নেই তাদের আইডিতে আপনার আইডি ফ্রেন্ড সাজেশন লিস্টে দেখাবেনা। তাই যাদের সাথে আপনার কোন মিউচুয়াল ফ্রেন্ড নেই তাদের ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠান।

এতে করে কেউ রিকোয়েস্ট এক্সেপ্ট করলে তার যেসব ফ্রেন্ড আছে তাদের আইডিতেও আপনার আইডি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানোর জন্য সাজেস্টেড আইডিগুলোর মাঝে দেখাবে। ফলে আপনার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার সম্ভবনা বহুহুন বৃদ্ধি পাবে।

* মজার ছবি ও ভিডিও আপলোড বা শেয়ার করুন:

প্রতিদিন মজার মজার ছবি ও ভিডিও আপনার একাউন্টে শেয়ার করুন। এতে করে আপনার পোস্ট বেশি রিচ পাবে এবং অনেকে আপনার পোস্ট শেয়ার করবে। ফলে সেখান থেকে নতুন অনেকে আপনাকে রিকোয়েস্ট পাঠাবে।

সেটিং এন্ড প্রাইভেসি সঠিকভাবে নির্ধারন করা: ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায় সমূহের মধ্য অন্যতম একটি উপায় হলো আপনার ফেসবুক একাউন্টের সেটিং এবং প্রাইভেসি সঠিকভাবে নির্ধারন করা।

প্রথমে আপনার একাউন্টের সেটিং এন্ড প্রাইভেসি অপশনে প্রবেশ করুন। এরপর এডিয়েন্স এন্ড ভিজিবিলিটি অপশনে প্রবেশ করে “How people find and contact you”, “Posts”, Followers and public content” অপশনগুলো পাবলিক ও এভরিওয়ান করে দিন।

কারন এগুলো ফ্রেন্ডস অব ফ্রেন্ডস, ফ্রেন্ডস বা অনলি মি করা থাকলে আপনার পোস্ট সবার কাছে পৌছাবেনা ও সবাই আপনাকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্টও পাঠাতে পারবেনা। তাই বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পেতে চাইলে এই অপশনগুলো সঠিকভাবে নির্ধারন করা খুবই জরুরী।

* প্রথম ১ মাস প্রতিদিন ২টি করে পোস্ট করুন:

নতুন আইডি খোলার পর প্রথম এক থেকে দেড় মাস প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যায় প্রতিদিন ২টি পোস্ট বা ফটো আপলোড করুন। এতে আপনার আইডির অর্গানিক রিচ বাড়বে। বেশি মানুষের কাছে আপনার পোস্ট পৌছে যাবে।

আপনি প্রতিদিন শিক্ষামূলক বা মজার পোস্ট আপলোড করতে পারেন। কারন এধরনের পোস্টগুলো মানুষ বেশি পড়ে ও শেয়ার করে। তাই প্রথমদিকে এধরনের পোস্ট বেশি দেয়াই ভালো।

আপনি চাইলে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে প্রতিদিন একটি করে শিক্ষনিয়, ধর্মিয় বা মজার পোস্ট ডাউনলোড করে সেটি আপনার আইডিতে আপলোড করতে পারেন।

ফেসবুকে আপলোড করার জন্য বিভিন্ন মজার পোস্ট, ইসলামিক পোস্ট, ভালোবাসার পোস্ট বা ইমোশনাল পোস্ট দরকার? আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে আপনার জন্য নিয়মিত এসব বিষয় নিয়ে হাজির হচ্ছি।

যখনই আপনার এধরনের কোন পোস্ট দরকার হবে তখনই আপনি আমাদের ওয়েবসাইটে এসে এখান থেকে ডাউনলোড করে নিয়ে আপনার আইডিতে তা পাবলিশ করতে পারবেন।

যেমন ধরুন আপনি প্রতি শুক্রবারে একটি ইসলামিক পোস্ট বা প্রোফাইল পিকচার আপলোড করতে চান কিন্তু কি পোস্ট লিখবেন বা প্রোফাইল পিকচার আপলোড করবেন তা ভেবে পাচ্ছেননা। তাহলে আপনাকে কোন চিন্তা করতে হবেনা বা কষ্ট করে কিছু লিখতেও হবেনা। আপনি শুধু আমাদের ওয়েবসাইটে এসে আপনার পছন্দমতো পোস্ট বা ছবিটি ডাউনলোড করে আপনার আইডিতে সেটি আপলোড করে দিবেন।

একই ভাবে যেকোন শিক্ষামূলক পোস্ট, ভালোবাসার পোস্ট, ইমোশনাল পোস্ট, ধর্মিয় পোস্ট বা মজার পোস্ট আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবেন কোন ধরনের রেজিস্ট্রেশনের ঝামেলা ছাড়াই।

তাই ভবিষ্যৎ প্রয়োজনের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটের নামটি মনে রাখুন এবং আমাদের ফেসবুক ফ্যানপেজে লাইক দিয়ে রাখুন যেন পরবর্তিতে সহজেই আমাদের খুজে পান।

আমাদের ফেসবুক পেজের লিংক- FANCIM.COM FACEBOOK FAN PAGE

ফেসবুকের জন্য ফানি ফটো কমেন্ট ডাউনলোড করতে এখানে প্রবেশ করুন।

আরো কিছু ছোট পরামর্শ –

* একটি সুন্দর ও আকর্ষনিয় প্রোফাইল ছবি ব্যবহার করুন। কারন আপনার প্রোফাইল ছবিটিই সবচেয়ে বেশি মানুষের চোখে পড়বে। তাই একটি সুন্দর প্রোফাইল ছবি ফেসবুক একাউন্টের একটি প্রয়োজনীয় অংশ।

* আকর্ষনিয় কভার ফটো ব্যবহার করুন। প্রোফাইল ছবির পাশাপাশি একটি আকর্ষনিয় কাভার ছবি ফেসবুকে আপনার বন্ধু ও অনুসারি বাড়াতে সহায়তা করবে। তাই সবসময় চেষ্টা করবেন একটি আকর্ষনিয় কভার ফটো ব্যবহার করতে।

* আপনার স্কুল, কলেজ ও কর্মস্থল যুক্ত করুন। আপনার আইডিতে স্কুল, কলেজ ও কর্মস্থল যুক্ত করা থাকলে অন্য যারা একই স্কুল, কলেজ ও কর্মস্থল তাদের আইডিতে যুক্ত করেছেন তাদের সাজেস্টেড ফ্রেন্ডে আপনার আইডি দেখাবে। এতে করে আপনার ফ্রেন্ডে রিকোয়েস্ট পাওয়ার সম্ভবনা বৃদ্ধি পাবে।

* আপনার পোস্টে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন। যখন আপনি কোন কিছু পোস্ট করবেন তখন আপনার পোস্টগুলোতে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করলে আপনার সমজাতীয় পোস্টগুলোর সাথে আপনার পোস্টটিও ভিজিটররা দেখতে পারবে। এতে করে আপনার পোস্ট বেশি মানুষের সামনে প্রদর্শিত হবে।

ফলে আপনার বন্ধু ও অনুসারির সংখ্যা বৃদ্ধিতে এটি ভালো ভূমিকা রাখবে।

উপরের কৌশলগুলো সঠিকভাবে কাজে লাগালে আপনি মাত্র ১ মাসের মধ্যেই কোন ধরনের ব্লক খাওয়া ছাড়াই ৪ হাজার থেকে ৫ হাজার বন্ধু আপনার আইডিতে যুক্ত করতে পারবেন।

ছবি বা স্ট্যাটাস পোস্ট করলেই লাইক, কমেন্ট পাবেন বেশি বেশি। আপনার ফেসবুক জীবনটা হয়ে উঠবে আরো বেশি আনন্দদায়ক।

ফেসবুকে বেশি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাওয়ার উপায় বা কৌশলগুলো জানলেন। আপনার অনলাইন জীবনকে আরো সহজ ও সাফল্যমন্ডিত করে তুলতে আমরা আপনার পাশে আছি। ভালো থাকবেন, ধন্যবাদ।

এই সপ্তাহের সর্বাধিক দেখা ভিডিও:

বাংলাদেশীদের জন্য সেরা অ্যাপ

BD MEDIA MATE APP SCREENSHOT

আমাদের ওয়েবসাইটের জনপ্রিয় পোস্টগুলি:

BEST APP FOR US PEOPLE

US MEDIA MATE APP