নিবন্ধ

ত্বকের যত্নে বরফ : ব্যবহারের নিয়ম ও উপকারিতা

ত্বকের জন্য বরফ, মুখে বরফ ঘষার উপকারিতা

ত্বকের যত্নে বরফ ব্যবহার হয়ে আসছে বহু আগে থেকেই । তবে এর অসাধারন উপকারিতাগুলো তেমন একটা প্রচার পায়নি । এই লেখায় আমরা ত্বকের যত্নে বরফের কিছু অসাধারন উপকারিতা আপনাদের সামনে তুলে ধরবো । হাজার হাজার টাকার প্রসাধনী ব্যবহার করে আর বহু কঠিন কঠিন নিয়ম নীতি মেনে আপনি যেটুকু উপকার পাবেন তার চাইতে বহুগুন বেশি উপকার পাবেন এই বিনামূল্যের বরফ ব্যবহার করে এবং সময় লাগবে মাত্র ৫/৬ মিনিট ! চলুন তাহলে দেখি নেই এর কিছু উপকারিতা ।

মুখে বরফ ঘষার উপকারিতা –

* ত্বকের দাগ দূর করে: বরফ ত্বকের দাগ হালকা করতে ভূমিকা রাখে । তাই মুখে ব্রনের দাগ হলে নিয়মিত আলতো ভাবে বরফ ঘষুন । এতে করে ব্রনের ফলে সৃষ্টি হওয়া বাজে দাগগুলো হালকা হয়ে যাবে ।

* রোদে পোড়া ভাব দূর করে: রোদে পোড়া ভাব দূর করতে বরফ খুব ভালো কাজে দেয় । রোদে দীর্ঘক্ষন হাটাহাটি বা কাজ করার পর ত্বকে বরফ ঘষতে পারেন । এটি ত্বকের রোদে পোড়া ভাব কমিয়ে দিবে ।

* ত্বকের তৈলাক্তভাব দুর করে: যাদের ত্বকে তৈলাক্ত ভাব রয়েছে তাদের জন্য বরফ বিশেষ উপকারি । তৈলাক্ত ত্বকে সভজেই ধূলাবালি জমে গিয়ে নোংরা হয়ে যায় এবং ত্বকের লোমকূপ বন্ধ হয়ে যায় যা ত্বকের জন্য খুবই ক্ষতিকর । যাদের ত্বক তৈলাক্ত তারা নিয়মিত বরফ ব্যবহার করতে পারেন । নিয়মিত বরফ ব্যবহার করলে তা তৈলাক্তভাব কমাতে সাহায্য করে ।

* সহজে বলিরেখা পরতে দেয়না: বরফের আরেকটি দারুন গুন হলো এটি বলিরেখা (চামড়ার ভাজ) নিয়ন্ত্রন করে । বয়স বাড়ার সাথে সাথে চামড়ায় ভাজ পড়তে শুরু করে । এর ফলে দেখতেও খারাপ লাগে । তাই দ্রুত চামড়ার ভাজ পরে যাওয়া ঠেকাতে বরফ দিয়ে ত্বকে আলতো ঘষুন ।

* ঠোটের কালচে ভাব দূর করে: ঠোটের কালচে ভাব দূর করতেও বরফ সাহায্য করে থাকে । ঠোটের কালচে ভাব দূর করার জন্য নিয়মিত আলতোভাবে কয়েকটি বরফের টুকরা ঘষুন ।

* রক্ত সন্চালন বৃদ্ধি: ত্বকে রক্ত সন্চালন বৃদ্ধি করতেও বরফ ভূমিকা রাখে । আলতো ভাবে ছোট ছোট বরফের টুকরা ঘষলে ত্বকে রক্ত সন্চালন বৃদ্ধি পায় । ত্বকে রক্ত সন্চালন বৃদ্ধি পেলে ত্বক হয়ে ওঠে আরো জীবন্ত এবং ত্বকের রোগ- জীবানু সহজে আক্রমন করতে পারেনা ।

* ত্বকের কোষ সতেজ করে: বরফ ত্বকের কোষগুলোকে সতেজ করে তোলে । ফলে চেহারা উজ্জল ও আকর্ষনীয় মনে হয় । চেহারা থেকে ক্লান্তি ও মলিন ভাব দূর হয়ে যায় ।

* লোমকূপ সচল করে: মুখ সহ সারা শরীরের লোমকূপ সচল করতে বরফ ভূমিকা রাখে । ঘাম, ধূলাবালি ও মৃত কোষের কারনে ত্বকের লোমকূপগুলো ঢাকা পরে যায় । এতে ত্বকে রোগজীবানু সৃষ্ট হতে পারে । বরফ দিয়ে আলতো ঘষার ফলে ত্বকের লোমকূপগুলো দ্রুত পরিষ্কার হয়ে সচল হয়ে ওঠে ।

* ডার্ক সার্কেল দুর করে: ত্বকের ডার্ক সার্কেল দূর করতে বরফ খুব ভালো ভূমিকা রাখে । তাই নিয়মিত বরফ ব্যবহার করলে ডার্ক সার্কেল সমস্যা কমে যাবে ।

* মৃত কোষ দুর করে: ত্বকের কোষকে সতেজ করার পাশাপাশি বরফ ত্বকের মৃত কোষ পরিষ্কার করতেও ভূমিকা রাখে । ত্বকে বরফ ঘষলে ত্বকের মৃত কোষ দূর হয় ।

* ত্বকের প্রাকৃতিক পরিষ্কারক: বরফ ত্বকের ভেতর থেকে ময়লা দুর করে । তাই মুখমন্ডল পরিষ্কার রাখতে চাইলে বরফ ব্যবহার করতে পারেন ।

* চোখের নিচের ফোলা কমায়: ঘুম কম হওয়ার কারনে বা অন্য নানা কারনে আমাদের চোখের নিচে ফোলা ভাব সৃষ্টি হয় । চোখের নিচে কিছুক্ষন বরফ দিলে তা এই ফোলাভাব কমাতে সাহায্য করে ।

ত্বকে বরফ ব্যবহারের সঠিক নিয়ম :

ত্বকে বরফ ব্যবহারের জন্য আপনাকে একটি সামান্য এবং সহজ নিয়ম মানতে হবে । গরম থেকে এসে বা অন্য যখনই হোক, হুট করে ফ্রিজ থেকে বরফ বের করেই ত্বকে বা চেহারায় ঘষা শুরু করবেন না । কারন গরম ত্বকে হুট করে ঠান্ডা বরফ দিলে ত্বকের স্পর্শকাতরতা নষ্ট হতে পারে । তাই বরফ দেয়ার আগে স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানি দিয়ে মুখটা একবার ধুয়ে নিবেন । এতে তখন ত্বকের তাপমাত্রা কিছুটা কমে আসবে । তারপর বরফ ব্যবহার করুন ।

ট্যাগ গুলো

মতামত যোগ করুন

মতামত দিতে ক্লিক করুন

error: দুঃখিত, অনুলিপি করা যাবে না ! পরে এই কন্টেন্ট প্রয়োজন হলে আপনার সামাজিক অ্যাকাউন্টের সাথে ভাগ করুন।