বাংলা সংবাদ (জরুরী)

ভারতের উত্তরপ্রদেশে প্রকাশ্যে নামাজ আদায়ে নিষেধাজ্ঞা !

যোগীর রাজ্যে প্রকাশ্যে নামাজ আদায়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।‌ ভারতের উত্তরপ্রদেশে আবারও বিতর্ক সৃষ্টি করল যোগী আদিত্যনাথের সরকার। নয়ডায় প্রকাশ্যে বিনা অনুমতিতে নামাজ আদায় করায় নিষেধাজ্ঞা জারি করল উত্তরপ্রদেশের পুলিশ। ফলে নয়ডা সেক্টর-৫৮ এর কোনো পার্কে বা খোলা জায়গায় পড়া যাবে না নামাজ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত সপ্তাহে নয়ডার সেক্টর-৫৮ এর একটি পার্কে নামাজ পড়া যাবে না বলে নিষেধাজ্ঞা জারি করে পুলিশ। ওই নির্দেশিকায় প্রতিষ্ঠানগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে, তাদের কর্মীরা যদি পার্কটিতে নামাজ আদায় করেন, তাহলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকেই নির্দেশ ভঙ্গের দায় নিতে হবে। নির্দেশিকা জারির পরে ওই শিল্পাঞ্চলে মুসলিম কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্তৃপক্ষ পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। তারা আদালতের দ্বারস্থ হওয়ারও চিন্তাভাবনা করছেন।

পুলিশের দাবি, ওই এলাকায় প্রকাশ্যে নামাজ পড়েন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মরত ব্যক্তিরা। প্রতি শুক্রবার সেখানে নামাজ আদায় করা হয়। ফলে স্থানীয়দের যাতায়াতে অসুবিধা হয় বলে অভিযোগ।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গেছে, সরকারি জায়গায় কোনো ধর্মীয় অনুষ্ঠান করতে গেলে প্রশাসনের অনুমতি নিতে হয়। এ ক্ষেত্রে নামাজ পড়া হচ্ছিল কোনো অনুমতি ছাড়াই। বিষয়টি নিয়ে অস্বস্তি শুরু হওয়ায় স্থানীয় ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অনুমতি নিতে যান কিছু মানুষ। কিন্তু সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির কথা মাথায় রেখে অনুমতি দেয়নি প্রশাসন।

এদিকে নির্দেশিকায় পুলিশ জানিয়েছে, অফিস চত্বরের ভেতরে বা ছাদে নামাজ পড়ার ব্যবস্থা করুক প্রতিষ্ঠানগুলো। কোনো কর্মীকে যেন সরকারি জায়গায় নামাজ আদায় করতে না দেওয়া হয়।

কিছু কিছু বিশ্লেষকদের মতে, উত্তরপ্রদেশে বিজেপি (ভারতীয় জনতা পার্টি) ক্ষমতা দখলের পর থেকে গোরক্ষাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে হিন্দুত্ববাদীরা। সম্প্রতি কয়েকটি জায়গার নাম বদল করা হয়েছে। এ ছাড়া গত বছর মুসলিমদের দুটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানের দিন ছুটি বাতিল করেছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন। আর সেই রাস্তাতেই এবার নামাজ নিয়ে নিষেধাজ্ঞা।

যদিও উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এই ঘটনায় কোনো প্রতিক্রিয়া জানাননি।

error: দুঃখিত, অনুলিপি করা যাবে না ! পরে এই কন্টেন্ট প্রয়োজন হলে আপনার সামাজিক অ্যাকাউন্টের সাথে ভাগ করুন।