Home » ওয়েবসাইটের ব্যান্ডউইথ খরচ কমানোর কিছু সহজ কৌশল
নিবন্ধ

ওয়েবসাইটের ব্যান্ডউইথ খরচ কমানোর কিছু সহজ কৌশল

web hosting

আপনার ওয়েবসাইটের ব্যান্ডউইথ বেশি থাকলে বেশি সংখ্যক ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারবে। আর যদি আপনার ওয়েবসাইটের ব্যান্ডউইথ শেষ হয়ে যায় তাহলে ভিজিটরের সামনে আপনার ওয়েবসাইটি লোড হবেনা।

আপনার ওয়েবসাইটের ব্যান্ডউইথ যেন শেষ হয়ে না যায় সেজন্য আপনি চাইলে বেশি পরিমান বা আনমিটারড ব্যান্ডউইথ কিনতে পারেন। এজন্য আপনাকে বাড়তি টাকা খরচ করতে হবে। অথবা কিছু কৌশল কাজে লাগিয়ে ব্যান্ডউইথ যেন কম খরচ হয় সেই ব্যবস্থা করতে পারেন। এখানে আমি আপনাদের জন্য ব্যান্ডউইথ খরচ কমানোর কয়েকটি সহজ কৌশল তুলে ধরছি।

ব্যান্ডউইথ খরচ কমানোর সহজ কিছু কৌশল:

* ছোট আকারের ছবি ব্যবহার করুন। আপানার ওয়েবসাইটে যখন আপনি ছোট আকারের ছবি ব্যবহার করবেন তখন তা আপনার হোস্টিং খরচ এবং ব্যান্ডউইথ খরচ উভয়টিকেই কমিয়ে আনবে। ধরুন আপনি একটি পোস্টে ৫০kb সাইজের একটি ছবি ব্যবহার করেছেন। এখন উক্ত পোস্টটি ভিজিটরেরা ১০ বার দেখলে ৫০×১০= ৫০০kb ব্যান্ডউইথ খরচ হবে কিন্তু আপনি যদি ২০kb সাইজের ছবি ব্যবহার করেন তাহলে ভিজিটরেরা পোস্টটি ১০ বার দেখলে ২০×১০= ২০০kb ব্যান্ডউইথ খরচ হবে। সুতরাং আপনার ৩০০kb ব্যান্ডউইথ বেচে যাবে।

* আপনার ওয়েবসাইটে ভিডিও ফাইল আপলোড না করে অন্য বড় বড় উৎস থেকে ভিডিও এমবেড করুন। সাধারনত ভিডিও ফাইলগুলোতে সবচেয়ে বেশি ব্যান্ডউইথ খরচ হয়। তাই আগে খুজে দেখুন আপনি যে ভিডিওটি ওয়েবসাইটে আপলোড করতে চাচ্ছেন সেটি ইউটিউব, ফেসবুক, ডেইলিমোশন সহ অন্য কোন ভিডিও স্ট্রিমিং সাইটে পাওয়া যায় কিনা। পেলে সেখান থেকে ভিডিওটি এমবেড করে দিন। এতে আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর সেই এমবেড করা ভিডিওটি দেখলে আপনার ওয়েবসাইট থেকে ব্যান্ডউইথ খরচ না হয়ে যাদের কাছ থেকে ভিডিও এমবেড করেছেন তাদের ব্যান্ডউইথ খরচ হবে। বড় বড় সাইটগুলোর যেহেতু আনমিটারড ব্যান্ডউইথ থাকে তাই এতে তাদের কোন সমস্যা হবেনা আর আপনারও ব্যান্ডউইথ বেচে যাবে।

* গুগল ড্রাইভকে আপনার ওয়েবসাইটের কাজে লাগান। গুগল ড্রাইভ হচ্ছে একটি ক্লাউড ফাইল স্টোরেজ সুবিধা। গুগলের যেকোন গ্রাহক সম্পূর্ন বিনামূল্যে ১৫ জিবি পর্যন্ত যেকোন ফাইল গুগল ড্রাইভে সংরক্ষন করে রাখতে পারে, অন্যদের সাথে ভাগ করে নিতে পারে এবং সুবিধামতো সময়ে উক্ত ফাইলের কপি ডাউনলোড করতে পারে। আপনি এটিকে আপনার ওয়েবসাইটের কাজে লাগাতে পারেন।

যেকোন গান, ভিডিও, পিডিএফ ফাইল, ওয়ার্ড ফাইল, এপিকে ফাইল বা অন্য যেকোন ফাইল যা আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটরদের ডাউনলোড করার জন্য দিতে চাচ্ছেন সেই ফাইলগুলো আপনার ওয়েবসাইটে আপলোড না করে গুগল ড্রাইভে আপলোড করুন এবং গুগল ড্রাইভ থেকে উক্ত ফাইলটি ডাউনলোড করার লিংকটি আপনার ওয়েবসাইটে দিয়ে দিন। এতে করে যাদের প্রয়োজন তারা সেই লিংকে ক্লিক করে গুগল ড্রাইভ থেকে ফাইলটি ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবে। এতে ভিজিটরেরা যতবার খুশি ফাইলটি ডাউনলোড করুকনা কেন তাতে আপনার ব্যান্ডউইথ খরচ হবেনা। এতে আপনার হোস্টিং স্পেসও যেমন বাচবে তেমনি ব্যান্ডউইথ খরচও কমবে।

* এক্সটার্নাল লিংক প্রদান করুন। বিভিন্ন টিউটোরিয়াল, ফাইল ডাউনলোড বা অন্য যেকোন প্রয়োজনীয় বিষয়ে অন্য ভালো ওয়েবসাইটগুলোকে এক্সটার্নাল লিংক প্রদান করতে পারেন। ধরা যাক আপনি কোন একটি তথ্য সম্পর্কিত পিডিএফ ফাইল বা ভিডিও টিউটোরিয়াল আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটরদের দিতে চাচ্ছেন। এক্ষেত্রে আপনি নিজের সাইটে ফাইলটি আপলোড না করে আগে থেকেই ফাইলটি আপলোড করা আছে এমন একটি ওয়েবসাইটের লিংক আপনার পোস্টে দিয়ে দিতে পারেন। তাহলে আপনার ভিজিটরেরা ফাইলটি সেখান থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবে। এতে যেমন আপনার ওয়েবসাইটের খরচ বাচবে তেমনি ওয়েবসাইট মালিকদের মাঝে পারস্পরিক সম্প্রীতি বৃদ্ধি পাবে।

* লেখাকে অপ্রয়োজনে টেনে বড় করবেননা। লেখা বড় হলে সেটি লোড হতে বেশি ব্যান্ডউইথ খরচ হবে এছাড়া বড় লেখা লোড হতে সময়ও বেশি লাগে ফলে ওয়েবসাইট ধীরগতি সম্পন্ন হয়ে যায়।

* লেখায় কম ছবি ব্যবহার করুন। চেষ্টা করুন যত কম ছবি যুক্ত করে লেখাটি প্রকাশ করা যায়। একটি ছবি দিয়েই লেখাটি প্রকাশ করুন। যেসব ছবি না দিলেও হয় সেসব ছবি দেয়ার কোন প্রয়োজন নেই। এক পরিসংখ্যানে দেখা যায়, পৃথীবিতে সকল ওয়েবসাইট মিলিয়ে যত ব্যান্ডউইথ খরচ হয় তার ৭০% এরও বেশি খরচ হয় শুধু ওয়েবসাইটের ছবিগুলি লোড করতে। তাই ছবি কম ব্যবহার করে আপনার ব্যান্ডউইথ খরচ কমিয়ে ফেলুন। এছাড়া ছবি না থাকলে ওয়েবপাতাটি খুব দ্রুত লোড হয়।

উপরে দেয়া সহজ কৌশলগুলো মেনে চললে আপনার ওয়েবসাইটের ব্যান্ডউইথ খরচ অনেকটাই কমে যাবে। ফলে ব্যান্ডউইথের সল্পতার জন্য সাইট কখনো ডাউন হবেনা, এছাড়া বাড়তি ব্যান্ডউইথের জন্য হোস্টিং প্রভাইডারকে বাড়তি টাকা দিতে হবেনা। ফলে আপনার ওয়েবসাইট পরিচালনা হয়ে উঠবে আরো বেশি লাভজনক।

Add Comment

Click here to post a comment

এই সপ্তাহের সর্বাধিক দেখা ভিডিও:

বাংলাদেশীদের জন্য সেরা অ্যাপ

BD MEDIA MATE APP SCREENSHOT

আমাদের ওয়েবসাইটের জনপ্রিয় পোস্টগুলি:

BEST APP FOR US PEOPLE

US MEDIA MATE APP